মেনু নির্বাচন করুন

ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রাপ্ত সেবা ও অধিকার

বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা কর্মসূচির ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রাপ্ত সেবা ও অধিকার

বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা কর্মসূচীর ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রাপ্ত সেবা ও অধিকার

শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। একটি জাতির সার্বিক উন্নয়ন নির্ভর করে শিক্ষার উপর। বাংলাদেশ সরকার ১৯৭৩ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ ও ১৯৮১ সালে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠা করে। ১৯৯০ সালে জাতীয় সংসদ কর্তৃক প্রাথমিক শিক্ষা (বাধ্যতামূলককরণ) আইন পাস করে। বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষাকর্মসূচী বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদের নিজস্ব কিছু দায়িত্ব ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রাপ্ত সেবা ও অধিকার

  • সচরাচর জিজ্ঞাসা

ইউনিয়ন পরিষদ থেকে প্রাপ্ত সেবা ও অধিকার

  • ইউনিয়ন পরিষদের শিক্ষা ও গণশিক্ষা স্ট্যান্ডিং কমিটি বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা কর্মসূচী বাস্তবায়নে দায়িত্ব পালন করে। 
  • ইউনিয়ন পরিষদ মেলা ও প্রদর্শনী আয়োজন করে।
  • ইউনিয়ন পরিষদ খেলাধুলা ও ক্রীড়া আয়োজন করে।
  • ইউনিয়ন পরিষদ লাইব্রেরি এবং পড়ার রুমের ব্যবস্থা করে।
  • জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা অনুযায়ী শিক্ষার উন্নয়নে সহায়তা করে।
  • ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় বসবাসরত ৬-১০বছরের শিশুর নাম, অভিভাবকের নাম ও শিশুর বয়স উল্লেখ করে সকল শিশুর ওয়ার্ড ভিত্তিক তালিকা তৈরিতে সাহায্য করে।
  • যুক্তি সঙ্গত কারণ ছাড়া ৬-১০ বছরের শিশুর প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়া এবং রীতিমতো হাজির হওয়া নিশ্চিত করার জন্য শিশুর অভিভাবককে উৎসাহিত করে।
  • সরকারের শিক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়নে সার্বিক সহায়তা দিয়ে থাকে।

সচরাচর জিজ্ঞাসা

প্রশ্ন ১: কত বছর বয়সে শিশু বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষার আওতায় আসে

উত্তর:  ৬ বছর বয়সে শিশু বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষার আওতায় আসে।

প্রশ্ন ২: বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিতকরণে ইউনিয়ন পরিষদ কি দায়িত্ব পালন করে

উত্তর: ইউনিয়ন পরিষদ ইউনিয়নের ৬-১০বছরের শিশুর নাম ও তাদের অভিভাবকদেরতালিকা তৈরিতে সহায়তা করে এবংবাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নেসার্বিক সহায়তা করে।

প্রশ্ন ৩: বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নে ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্ব প্রাপ্ত কারা

উত্তর: ইউনিয়ন পরিষদের শিক্ষা ও গণশিক্ষা স্ট্যান্ডিং কমিটি।